1. selimsavar@gmail.com : khobar24 :
সর্বশেষ :
সমকামী কলেজ শিক্ষককে প্রত্যাহারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন, বিক্ষোভ সিলেট ও কুড়িগ্রামের বন্যা দুর্গতদের পাশে কুঁড়েঘর ব্যান্ডের তাসরিফ সিংগাইরে প্রধানমন্ত্রী ও সাংসদ মমতাজ বেগমের ছবি বিকৃত করায় ছাত্রলীগ নেতা টিপুর থানায় অভিযোগ সাভারে ঠিকাদার কাউসাররের বিরুদ্ধে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেয়ার অভিযোগ নৌকাবাইচ ঐতিহ্য রক্ষার নতুন কমিটির নেতৃত্বে মাসুদ-রণজিৎ-রাশিম সাভারে আবারও ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ আশুলিয়ায় ছাত্রদলের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ভুয়া আইডি খুলে পৌর ছাত্রলীগ নেতার নামে অপপ্রচারের অভিযোগ আমিনবাজারে সরকারী খাল ও কৃষিজমির মাটি কেটে ইটভাটায় বিক্রি

কক্সবাজারে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি আশিক গ্রেপ্তার

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১২৪ বার পড়েছেন

অনলাইন ডেস্ক : কক্সবাজারে স্বামী-সন্তানকে জিম্মি করে নারী পর্যটককে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি আশিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। তাকে মাদারীপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আশিক কক্সবাজার শহরের বাহারছড়ার বাসিন্দা মৃত আব্দুল করিমের ছেলে।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, তার বিরুদ্ধে হত্যা, নারী নির্যাতন, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, অস্ত্র ও মাদকসহ নানা অপরাধে ১৬টি মামলা রয়েছে। একটি ছিনতাই মামলায় তিনি গত ১৬ ডিসেম্বর জামিনে কারাগার থেকে বের হন।

ধর্ষণের মামলায় আশিককে নিয়ে এই পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হল। তার মধ্যে আশিক এবং হোটেল ব্যবস্থাপক রিয়াজ উদ্দিন ছোটনের নাম মামলার এজাহারে রয়েছে। ছোটন কক্সবাজার সদরের পিএমখালীর জসিম উদ্দিনের ছেলে।

বাকি তিনজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলেন- কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ বাহারছড়া এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে রেজাউল করিম সাহাবুদ্দিন (২৫), পশ্চিম বাহারছড়া এলাকার সালেহ আহমেদের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫) ও চকরিয়া উপজেলার ডুলহাজারা ইউনিয়নের উলুবুনিয়া এলাকার মুক্তার আহমদের ছেলে মামুনুর রশিদ (২৮)।

এজাহারভুক্ত আসামিদের মধ্যে বাহারছড়া এলাকার মো. শফিউদ্দিন শফির ছেলে ইসরাফিল হুদা জয় এবং আবুল কাশেমের ছেলে মেহেদী হাসান বাবু এখনও গ্রেপ্তার হননি।

২৫ বছর বয়সী ওই নারীর অভিযোগ, গত ২২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সংঘবদ্ধ একটি চক্র কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্ট থেকে তাকে তুলে নেয়। তার স্বামী-সন্তানকে জিম্মি করে এবং হত্যার হুমকি দিয়ে তাকে ‘কয়েক দফা ধর্ষণ করে’ তিনজন।

পরে খবর পেয়ে জিয়া গেস্ট ইন নামের এক হোটেল থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব।

পরদিন ওই নারীর স্বামী চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে কক্সবাজার সদর থানায় মামলা করেন।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন :